ভারতের বিধান সভা নির্বাচন | ভারতে বড় নির্বাচনী সভা ছাড়াই ৫ রাজ্যে বিধানসভার ভোট

This post is also available in: বাংলাদেশ

ভারতের বিধান সভা নির্বাচন,  সংক্রমণের দরুন সংসদীয় ভারতের ইতিহাসে এই প্রথম বড় নির্বাচনী জনসভা ও রোড শো ছাড়াই ভোট হতে চলেছে। সোমবার দেশটির নির্বাচন কমিশন পাঁচ রাজ্য বিধানসভার ভোটে বড় মাপের সব ধরনের প্রচার ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত নিষিদ্ধ রাখার কথা ঘোষণা করেছে।

ভারতের বিধান সভা নির্বাচন | ভারতে বড় নির্বাচনী সভা ছাড়াই ৫ রাজ্যে বিধানসভার ভোট

 

ভারতের বিধান সভা নির্বাচন | ভারতে বড় নির্বাচনী সভা ছাড়াই ৫ রাজ্যে বিধানসভার ভোট

 

কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের সঙ্গে বৈঠকে কোভিড পরিস্থিতি পর্যালোচনার পর কমিশন বলেছে, ওই তারিখ পর্যন্ত এই পাঁচ রাজ্যে কোনো বড় নির্বাচনী জনসভা, রোড শো, বাইক মিছিল, পদযাত্রা বা স্ট্রিট কর্নার মিটিংও করা যাবে না। কমিশন অবশ্য কিছু ক্ষেত্রে নিয়ম শিথিলও করেছে। যেমন নির্দিষ্ট খোলা জায়গায় সর্বোচ্চ এক হাজারজন নিয়ে জনসভা করা যাবে। আর কোনো অডিটরিয়াম বা হলরুমে আয়োজিত সভায় থাকতে পারবেন সর্বোচ্চ ৫০০ জন। বাড়ি বাড়ি প্রচারে যোগ দিতে পারবেন সর্বোচ্চ ২০ জন। এত দিন পর্যন্ত প্রতি ক্ষেত্রে এই সংখ্যা ছিল অর্ধেক।

সেদিন ভোট উত্তর প্রদেশের জাট ও ব্রজভূমির ৫৫ কেন্দ্রে। এ ছাড়া ওই দিনে ভোট হবে পাঞ্জাব, উত্তরাখন্ড ও গোয়ার সব আসনে। নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী ভোট গ্রহণের ৪৮ ঘণ্টা আগে সব ধরনের প্রচার বন্ধ করা বাধ্যতামূলক, যাতে মানুষ কাকে সমর্থন করবেন, ভাবার সময় পান। ১১ ফেব্রুয়ারি কমিশন প্রচারসম্পর্কিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করলেও ১২ তারিখে বড় জনসভা করার সময় কেউ পাবে না। ফলে দেখা যাচ্ছে, উত্তর প্রদেশের ১১৩, পাঞ্জাবের ১১৭, উত্তরাখন্ডের ৭০ ও গোয়ার ৪০ মোট ৩৪০ বিধানসভা কেন্দ্রের ভোট হবে কার্যত বড় জনসভা, রোড শো, বাইক মিছিল বা বড় মাপের পদযাত্রা ছাড়াই। ভারতের ইতিহাসে এমন ঘটনা এর আগে ঘটেনি। এই নিষেধাজ্ঞা মানার বিষয়ে নির্বাচন কমিশন প্রতিটি রাজ্যকে সতর্ক করে দিয়েছে।

এবারের ভোট পর্ব মোট সাত পর্যায়ের। ১১ ফেব্রুয়ারি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহৃত হলে উত্তর প্রদেশের বাকি পাঁচ পর্বের সঙ্গে মণিপুরের দুই পর্বের ভোটের প্রচার স্বাভাবিকভাবে হতে পারবে।

 

ভারতের বিধান সভা নির্বাচন | ভারতে বড় নির্বাচনী সভা ছাড়াই ৫ রাজ্যে বিধানসভার ভোট

নির্বাচন কমিশনের এই নির্দেশের ফলে উত্তর প্রদেশের প্রথম দুই দফা এবং পাঞ্জাব, গোয়া ও উত্তরাখন্ডের নির্বাচন বড় জনসভা ও রোড শো ছাড়াই অনুষ্ঠিত হতে চলেছে বলা যায়। পাঁচ রাজ্য বিধানসভার ভোট পর্ব শুরু ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে। ওই দিন শুধু ভোট হবে উত্তর প্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলের ৫৮ কেন্দ্রে। প্রচারকেন্দ্রিক নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকছে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। ফলে ১০ ফেব্রুয়ারির ভোট হবে বড় জনসভা ও রোড শো ছাড়াই। দ্বিতীয় পর্বের ভোট ১৪ ফেব্রুয়ারি।

এদিকে কোভিড বিধি মেনে সোমবার শুরু হয়েছে ভারতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনও। প্রথা অনুযায়ী দুই কক্ষের যৌথ অধিবেশন শুরু হয় রাষ্ট্রপতির ভাষণ দিয়ে। এরপর লোকসভা ও রাজ্যসভায় পেশ হয় ২০২২-২৩ সালের অর্থনৈতিক সমীক্ষার প্রতিবেদন। প্রতিবেদন পেশের পর দুই কক্ষের অধিবেশন প্রথামাফিক সারা দিনের মতো মুলতবি হয়ে যায়। আজ মঙ্গলবার পেশ হবে কেন্দ্রীয় বাজেট।

সোমবার সংসদের অধিবেশন দিনের মতো মুলতবি হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উত্তর প্রদেশের ভোটে প্রথমবারের মতো নির্বাচনী ভাষণ দেন। ভার্চ্যুয়াল সেই ভাষণে তাঁর আক্রমণের মূল লক্ষ্য ছিল সমাজবাদী পার্টি, উত্তর প্রদেশে এবার যারা বিজেপির প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে উঠে এসেছে।

 

ভারতের বিধান সভা নির্বাচন | ভারতে বড় নির্বাচনী সভা ছাড়াই ৫ রাজ্যে বিধানসভার ভোট

 

আরও দেখুনঃ

This post is also available in: বাংলাদেশ

মন্তব্য করুন