প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা

This post is also available in: বাংলাদেশ English

পাকিস্তানের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকা ‘ডেইলি টাইমস’ ও  ‘উইকলি ফ্রাইডে টাইমস’ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করা হয়েছে। পাকিস্তানের পাঞ্জাবের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, গবেষক ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক বিশ্লেষক ড. মালিকা-ই- আবিদা খাত্তাক তার নিবন্ধে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থা, দূরদর্শিতা এবং সাহসী সিদ্বান্তের ভূয়সী প্রসংশা করেছেন। ‘বাংলাদেশে পদ্মা সেতুর গল্প: একটি সেতুর চেয়ে বড়?’ শীর্ষক নিবন্ধে তিনি পদ্মা সেতু নির্মাণের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ উত্থাপন করেছেন।

ড. মালিকা আরও বলেন, পদ্মা সেতুর মতো অবকাঠামো নির্মাণ করে বাংলাদেশের উন্নয়নের মূর্ত প্রতীক শেখ হাসিনা বিশে^ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এবং আস্থাও দূরদর্শিতার পরিচয় দিয়েছেন। পদ্মা সেতু নির্মাণের সময় বিশ^ ব্যাংক দুর্নীতির অভিযোগ আনলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দ্ব্যর্থহীনভাবে বলেছেন ‘আমরা নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করবোই।’ কানাডার একটি আদালতে পদ্মা সেতুতে দুর্নীতির অভিযোগ আনলে তা মিথ্যে প্রমাণিত হয়। বাংলাদেশের মুষ্টিমেয় কিছু লোক দেশ বিরোধী ষডযন্ত্র করে দূর্নীতির অভিযোগ ছড়িয়ে দিয়েছিল,কিন্তু শেখ হাসিনা তা দৃঢতার সঙ্গে মোকাবেলা করেন এবং সত্য প্রতিষ্টা করেন।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা
Sheikh Hasina, শেখ হাসিনা

পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণে শেখ-হাসিনার দূরদর্শি নেতৃত্বের স্বাক্ষর বহন করে। তাঁর শাসনামলে বিশ^বাসী আবারও বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় ভবিষ্যৎ জানার সুযোগ পেয়েছে। বাংলাদেশ এমন একটি দেশ যেটি বিশ^কে বারবার তার সক্ষমতা দেখিয়েছে। ড. মালিকা বলেন, বিশ^ব্যাপী মহামারি করোনা শুরু হলেও পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ পুরোদমে চলেছে। শেখ-হাসিনার অদম্য ইচ্ছা শক্তির কারণে সেতু নির্মাণের কাজ একদিনের জন্য ও বন্ধ হয়নি। পাকিস্তানের গণমাধ্যম বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মডেলের প্রসংশা করে চমৎকার নিবন্ধ প্রকাশ করেছে। পাকিস্তানি গণমাধ্যম বাংলাদেশ এবং তার অর্থনৈতিক সাফল্যের ব্যাপক প্রশংসা করেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা
Sheikh Hasina, শেখ হাসিনা

বিশ^ ব্যাংক ও দাতা সংস্থাগুলো অর্থায়নে মুখ ফিরিয়ে নেয়ায় এক সময় পদ্মা সেতুর নির্মাণ প্রায়ই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। তখন সমালোচকরা তুচ্ছ তাচ্ছিল্য মনোভাব প্রকাশ করেছিল। এসব ষড়যন্ত্রকারী গুজব ছড়াতে লাগলো পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে। সবকিছুকেই মিথ্যে প্রমাণিত করে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ-হাসিনা সেতুটি নির্মাণ করেছেন। আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের কথা রয়েছে। ঐ দিন একই সময়ে বাংলাদেশের ৬৪টি জেলায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান প্রজেক্টরের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। অনুষ্ঠানটি স্মরণীয় করে রাখতে ঢাকার হাতির ঝিলে ‘লেজার শো’সহ সারাদেশে একই ধরনের কর্মসূচি থাকবে। পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সব পক্ষ এবং আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিরাসহ এমনকী বিশ^ ব্যাংকের প্রতিনিধিরা ও উপস্থিত থাকবেন।

এর আগেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়শী প্রশংসা করেন শ্রীলংকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা
Sheikh Hasina, শেখ হাসিনা

 

বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন, ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তর, নারী ক্ষমতায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ-হাসিনার ভূয়শী প্রশংসা করেছেন শ্রীলংকার পররাষ্ট্র মন্ত্রী প্রফেসর গামিনি লক্ষণ পিরিস। সফররত শ্রীলংকার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সচিবালয়ে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী  সাথে সাক্ষাতকালে প্রধামন্ত্রী শেখ-হাসিনার আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের প্রশংসা করেন। সাক্ষাতকালে তারা পারস্পারিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট দ্বিপাক্ষিক বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেন। তারা দু’দেশের মধ্যে দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ-হাসিনার নেতৃত্বে এ সম্পর্ক দৃঢ় হয়েছে। ভবিষ্যতে তা আরো গভীর হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে করোনা ঝুঁকির মধ্যেও শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট রাজা পাকশে বাংলাদেশে আসায় প্রতিমন্ত্রী  তাঁকে ধন্যবাদ জানান। প্রতিমন্ত্রী জানান, শ্রীলংকার সাথে বাংলাদেশের শিপিং সেক্টরের ব্যবসা বাণিজ্য প্রসারের সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি বলেন, বে অব বেঙ্গলে (বঙ্গোপসাগরে) শিপিংলাইনে  বাংলাদেশ যতবেশি জায়গা করতে পারবে তত বেশি লাভবান হবে। ২০২৪ সালে চট্টগ্রাম বন্দরের বে-টার্মিনাল এবং ২০২৬ সালে কক্সবাজারের মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মিত হলে শ্রীলংকা সেগুলো ব্যবহার করতে পারবে। বাংলাদেশের অর্থনীতির বুনিয়াদ শক্তিশালী হবে। এসময় অন্যান্যের মধ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত শ্রীলংকার হাইকমিশনার প্রফেসর সুদর্শন সেনেবিরতেœ উপস্থিত ছিলেন।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা
Sheikh Hasina, শেখ হাসিনা

 

আরও দেখুনঃ 

বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য ছয় দফা ছিল ‘ম্যাগনা কার্টা’

প্রধানমন্ত্রীঃ দেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার অক্ষুন্ন রাখতে আওয়ামী লীগ সরকার বদ্ধপরিকর

সীতাকুন্ডে কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকান্ডে নিহত ৩৪ আহত চার শতাধিক

তথ্যমন্ত্রীঃ শেখ হাসিনার সরকার ইসলামের জন্য অতীতের যে কোন সরকারের চেয়ে অনেক বেশি কাজ করেছে

স্বাস্থ্যমন্ত্রীঃ স্বাস্থ্যখাতকে ডিজিটাইজ করা হচ্ছে

চিকিৎসকদের সেবার ব্রত নিয়ে জনগণের পাশে থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

This post is also available in: বাংলাদেশ English

মন্তব্য করুন